সোমবার ১৬ এপ্রিল ২০১৮। ৩ বৈশাখ ১৪২৫। ২৮ রজব ১৪৩৯
ফনেটিক ইউনিজয়
সার্চ
¦

ব্রেকিং নিউজ

  • মুফতি হান্নানসহ তিনজনের ফাঁসি কার্যকর
কচুয়ায় ইরি-বোরো ধানের ক্ষেতে নেক ব্লাস্ট রোগে আক্রান্ত ॥ কৃষকরা দিশেহারা

জিসান আহমেদ নান্নু

প্রকাশ : ১৬ এপ্রিল, ২০১৮

চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলায় বিভিন্ন এলাকায় ইরি-বোরো ধানের জমিতে নেক ব্লাস্ট রোগে আক্রান্ত হওয়ায় কৃষকরা দিশেহারা হয়ে পড়েছে।
চলতি মৌসুমে এ উপজেলায় সাড়ে ১২ হাজার হেক্টর জমিতে ইরি-ধান চাষ করা হয়। বিগত বছরের চেয়ে এ বছর বাম্পার ফলন হয়েছে বলে কৃষকরা অভিমত প্রকাশ করেছে। কিন্তু সকল মাঠের ইরি ফসলই কম বেশি নেক ব্লাস্ট রোগে আক্রান্ত হয়েছে। এখন প্রতিদিনই বৃষ্টিসহ ঝড়-তুফান হচ্ছে। এতে এ রোগ দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। গত বছর প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে (অতি বৃষ্টির কারণে) বরো আমন ফসল ঘরে তুলতে পারেনি এ উপজেলার কৃষকরা। ফলে কৃষকদের অপুরণীয় ক্ষতি সাধিত হয়। চলতি বরো মৌসুমেই পূর্বের ক্ষতি পুষিয়ে উঠতে আগে বাগেই কোমর বেঁধে নামে কৃষকরা। কিন্তু বিধিবাম! চলতি মৌসুমেও কাক্সিক্ষত ফসল হারাতে বসেছে কৃষকরা।
অনেক কৃষকই চাষাবাদে বিনিয়োগ করা মুলধনের অর্ধেক অর্থের ফসল ঘরে তুলতে পারবেন কিনা সন্দেহ পোষন করছে। ধান গাছের শীষ বের হওয়ার অংশে প্রথমত কালো দাগ সৃষ্টি হয়। এ দাগ সৃষ্টির অল্প কয়েকদিনের মধ্যে ধানের ছড়া দ্রুত শুকিয়ে সাদা বর্ন হয়ে যায় (চিটা হয়ে যায়)।
কৃষিবিদদের মতে-রাতে ঠা-া, ভোরে ঘন কুয়াশা এবং দিনে গরমের কারনে এ নেক ব্লাস্ট রোগ ছড়িয়ে পড়ছে। এ রোগ দ্রুত ছড়িয়ে পড়ার প্রধান কারণ হচ্ছে, ঝড় ও বৃষ্টি। ঝড়ে নেক ব্লাস্ট রোগের ছত্রাক এক মাঠ থেকে আরেক মাঠে এবং বৃষ্টি জনিত কারনে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হলে প্রবাহিত পানি দ্বারা ছত্রাক এক জমি থেকে আরেক জমিতে ছড়িয়ে পড়ছে।
কচুয়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আহসান হাবিব নেক ব্লাস্ট রোগে ইরি-বরো ধান আক্রান্ত হওয়ার সত্যতা স্বীকার করে জানান, এ রোগ প্রতিরোধে টুপার, নিটাভো ও ফিলিয়া নামক কীটনাশক ঔষধ পানিতে মিশিয়ে স্প্রে করতে হবে। প্রথমবার স্প্রে করার ৮-৯ দিন পর দ্বিতীয়বার স্প্রে করতে হবে। নিয়মিত যাতে কৃষকরা ওই কীটনাশক ব্যবহার করে সেজন্য উপজেলার বিভিন্ন অঞ্চলে উপজেলা সহকারি কৃষি কর্মকর্তারা কাজ করছেন।
এদিকে এ ভয়াবহ নেক ব্লাস্ট রোগ প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় পরামর্শ পেতে উপসহকারি কৃষি কর্মকর্তাদেরকে ঠিক মত মাঠে ময়দানে পাওয়া যাচ্ছেনা বলে কৃষকদের পক্ষ থেকে অভিযোগ উঠছে।
প্রথম পাতা পাতার আরো খবর

সম্পাদক মণ্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব ওচমান গণি পাটোয়ারী, উপদেষ্টা মন্ডলীর সভাপতি : ডাঃ জে আর ওয়াদুদ টিপু, প্রতিষ্ঠাতা ও প্রকাশক : মোঃ সেলিম খান, প্রধান সম্পাদক: রাশেদ হোসেন চৌধুরী (রনি), সম্পাদক : আলহাজ্ব অ্যাডঃ জসিম উদ্দিন পাটোয়ারী, ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : শহীদ পাটোয়ারী, যুগ্ম সম্পাদক : জাহিদুল ইসলাম রোমান, নির্বাহী সম্পাদক : শাহ্ আলম মল্লিক, বার্তা সম্পাদক : গোলাম মোস্তফা, যুগ্ম বার্তা সম্পাদক : মানিক দাস, সহ-সম্পাদক শেখ আল মামুন, চীফ ফটোগ্রাফার ও রিপোর্টার : মুহাম্মদ আলমগীর, মফস্বল সম্পাদক : এস এম মহসিন, বিজ্ঞাপন ম্যানেজার : মোঃ ফারুক হোসেন ভূঁইয়া। প্রকাশক কর্তৃক ১০নং লক্ষ্মীপুর মডেল ইউনিয়ন, চাঁদপুর থেকে প্রকাশিত এবং সিরাজ অফসেট, কলেজ গেইট, চাঁদপুর থেকে মুদ্রিত। কার্যালয় : খান সুপার মার্কেট (নিচ তলা), ঘোষপাড়া ব্রিজের পশ্চিমে, মরহুম আব্দুল করিম পাটোয়ারী সড়ক, চাঁদপুর-৩৬০০। যোগাযোগ : ০১৭১২২০৫৭৪৭।